সিংগাইরে অগ্নিকান্ডে ৪টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই, ক্ষতি পরিমাপ প্রায় ৭০ লক্ষ টাকা

প্রকাশিত: ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২১, ২০২০

সিংগাইর পিরতিনিধি: ২১ ডিসেম্বর ২০২০

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে ৩টি কাপড়ের দোকান ১টি টেইলার্স অগ্নিকান্ডে সম্পূর্ন পুড়ে ছাই হয়ে আরও ৪টি দোকানের আংশিক পুড়ে প্রায় ৭০ লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২১ ডিসেম্বর (সোমবার) ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে উপজেলার জামশা ইউনিয়নের শারারিয়া বাজারে।

ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকরা গচ্ছেন-মানিকগঞ্জের হাটিপাড়া ইউনিয়নের গোপালখালী গ্রামের বিন্দু মিয়ার ছেলে এখলাছ, এলাকার মৃত.আনু মোল্লার ছেলে সেলিম মিয়া,মৃত.আফসার বেপারীর ছেলে মিলন বয়াতী,নায়েব আলীর ছেলে নয়ন,মিনাজ উদ্দিনের ছেলে সফি উদ্দিন,

আংশিক ক্ষতিগ্ররা হলেন- রমিজউদ্দিনের ছেলে বুলবুল আহমেদ ও মোস্তফা, মিনাজ উদ্দিনের ছেলে সফি উদ্দিন, মো.মজর আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক।

জানা যায়, সোমবার ভোরে স্থানীয়রা ফজর নামাজ পড়তে মসজিদে যাওয়ার সময় বাজার আগুন দেখে মুসল্লীরা মসজিদের মাইক দিয়ে বিষয়টি অবগত করলে তাৎক্ষনিক এলাকার লোকজন এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে ততক্ষন ৩টি কাপড়ের দোকান ১টি টেইলার্স সম্পূর্ন পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

অপরদিকে আরও ২টি মুদি দোকান,১টি ফার্মেসী,১টি টেইলার্স আংশিক পুড়ে যায়। ধারনা বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। পরে খবর পেয়ে মানিকগঞ্জ জেলা ফায়ার সার্ভিসের টিম এসে সম্পূর্ন আগুন নিয়ন্ত্রন আনে।

এ ব্যাজারে শারারিয়া বাজার কমিটির সভাপতি মো.আছমত আলী মাষ্টার জানান,বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। তবে যে সমস্ত দোকান পুড়ে গেছে তারা প্রত্যেকে ধারদেনা কিস্তি,ব্যাংক লোন নিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। এখন তাদের ঘুরে দাড়ানোর অবস্থা নেই। সবাই নি:শ্ব হয়েছে গেছে। সরকারে সহযোগীতা না পেলে তারা ঘুরে দাড়াতে পারবে না।